স্বামীর দাফনের পর আত্মহত্যা করলেন স্ত্রীও

কুমিল্লা নিউজ ডেস্ক ।। বছরখানেক আগে প্রেমের সফল পরিণতি আসে খোকা ও ঋতুর জীবনে। কিন্তু সে বিয়ে দুই পরিবারে কেউ মেনে নেয়নি।

প্রথমে খোকার বোনের বাড়ি ও পরে আলাদা বাসায় বসবাস শুরু করেন তাঁরা। ব্যবসার জন্য টাকাও জোগাড় করছিলেন খোকা। এরই মধ্যে খোকা আত্মহত্যার পথ বেছে নেন। খোকাকে মাটি দেওয়ার পরপরই একসঙ্গে মাটি দেওয়ার কথা লিখে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন ঋতুও। খোকা আত্মহত্যা করেন ঢাকার ভাড়া বাসায়। স্বামীর লাশ দাফনের পরপরই ঋতু আত্মহত্যা করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার কান্দিপাড়ার মামা শ্বশুরের বাসায়। একসঙ্গে দুজনের মৃত্যুতে উভয়ের পরিবারে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

পুলিশ ও পরিবারের লোকজনের কাছে খোকার মৃত্যুর কারণ এখনো অজানা। অন্যদিকে স্বামীর আত্মহত্যার শোক সইতে না পেরে ঋতু আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ঋতুর শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী দুজনকে পাশাপাশি দাফন করা হয়েছে।

মৃত্যুর আগে ঋতু লিখে গেছেন, ‘আরে খোকার সাথে মাটি দিবেন। আমি খোকারে ছাড়া থাকতে পারমো না, বিদায়। ’ আইব্রু দিয়ে একটি সাদা কাগজে এ কথা লিখে যান ঋতু। মৃত্যুর আগে একটি চিরকুটে খোকাও লিখে গেছেন, তাঁর মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়। বোন যেন তাঁকে ক্ষমা করে দেন।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলা কুণ্ডা ইউনিয়নের গুচ্ছ গ্রামের নজরুল ইসলামের বড় ছেলে খোকা মিয়া এবং ঢাকার দক্ষিণখান এলাকার ভাড়া বাসায় থাকা রানা মিয়ার মেয়ে ঋতু আক্তার উত্তরার একটি গার্মেন্টে চাকরি করতেন। তাঁদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠলে বছরখানেক আগে বিয়ে করেন। উভয়ের পরিবারই বিয়ে মেনে নিতে পারেনি। একপর্যায়ে খোকা তাঁর স্ত্রীকে নিয়ে ঢাকায় বোনের বাড়িতে বসবাস শুরু করেন। কয়েক মাস আগে নিজে বাসা ভাড়া করে সেখানে থাকতে শুরু করেন। গত সোমবার রাতে খাওয়াদাওয়া করে দুজন ঢাকার বাসায় ঘুমিয়ে পড়েন। ভোরের দিকে ওই ঘরেই গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন খোকা। গতকাল মঙ্গলবার খোকার লাশ তাঁর নানাবাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকার কান্দিপাড়ায় নিয়ে আসা হয়। বিকেলে শিমরাইলকান্দি কবরস্থানে খোকার লাশ দাফন করা হয়। গভীর রাতে মামা শ্বশুর বাহার মিয়ার বাড়ির স্টোররুমে সিলিংয়ের সঙ্গে শাড়ি পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন ঋতু। খবর পেয়ে গতকাল বুধবার সকালে সদর থানা পুলিশ এসে তাঁর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। বিকেলে খোকার কবরের পাশেই ঋতুর দাফন সম্পন্ন হয়।

ঋতুর লাশ উদ্ধারকারী ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. মিজানুর রহমান জানান, স্বামী ও স্ত্রী দুজনই মৃত্যুর আগে চিরকুট লিখে গেছেন। খোকার আত্মহত্যার কারণ সম্পর্কে পরিবারের লোকজনও স্পষ্ট করে কিছু বলতে পারছে না। ঋতুর মৃত্যুর ঘটনায় আপাতত একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হবে।

- কুমিল্লা নিউজ ২৪/মোঃ এমদাদুল হক রনি/২৮ সেপ্টেম্বের’২০১৭

 

 

দারোগা বাড়ি, উত্তর চর্থা
কুমিল্লা-৩৫০০, বাংলাদেশ
ই-মেইল: bdcomillanews24@gmail.com
নিউজ রুম: +8801976530514

প্রধান সম্পাদকঃ হুমায়ূন কবির রনি
নিউজরুম এডিটরঃ তানভীর খন্দকার দীপু
নূরুল আমিন জহির
ই-মেইলঃ editor@comillanews24.com