নবীনগরে বাজারের জমি লিজ দেওয়া নিয়ে স্থানীয়দের উত্তেজনা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি ।।  ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর সদরের বড় বাজারের কয়েক কোটি টাকার মূল্যবান খাস খতিয়ানভূক্ত ফল পট্টির ২৪৭২ দাগের জমি লিজ দেওয়া নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। এই স্থানে গত মঙ্গলবার রাতের আঁধারে ফল বিক্রেতাদের দোকান ভাঙচুর করে জমি দখলের চেষ্টা করলে এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

জানা গেছে, বড় বাজারের ২৪৭২ দাগের জমিটি ভূমি অফিস জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের মাধ্যমে নবীনগরের আওয়ামী লীগ নেতা জসিমউদ্দিন ও স্থানীয় সাংবাদিক সাইদুল আলম সোরাফের নামে বরাদ্ধ দেয়। তারা গত মঙ্গলবার রাতের আঁধারে জমিটিতে থাকা ২০ বছরের পুরনো ফল বিক্রেতাদের দোকান ভাঙচুর করে এবং বুধবার সকালে জমিটি দখলের চেষ্টা করে।

বাজারের এই জমি লিজ দেওয়ায় স্থানীয়রা এর প্রতিবাদ করে, পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। স্থানীয়দের দাবি, নবীনগর বাজারে কোনো খোলা জায়গা নেই। তাই অবিলম্বে বাজারের প্রবেশ মুখ ও চারটি রাস্তার মোড়ের এই জায়গাটির লিজ বাতিল করে জায়গাটি জনগনের সুবিধার্থে উন্মুক্ত করে দেওয়া হোক।

নবীনগর বাজারের ব্যবসায়ী তারন মিয়া ও সফিক মিয়া বলেন, আমরা ১২ বছর ধরে এই জায়গাতে ব্যবসা করে আসছি। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় প্রতিদিনের মতো দোকানধারী করে মালামাল গুছিয়ে গেলাম, সকালে এসে দেখি আমাদের দোকানই নাই।

নবীনগর উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা নাছির উদ্দিন বলেন, ‘এই জায়গাটি ৩০ বছর ধরে উম্মুক্ত রয়েছে, কোন ব্যক্তি আওয়ামী লীগের দলীয় পরিচয় দিয়ে জায়গা লিজ নিয়ে দখল করলে এর দায় আওয়ামী লীগ ও আমাদের সাংসদ ফয়জুর রহমান বাদল নেবেন না।’

নবীনগর পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক খাইরুল আমিন বলেন, ‘লিজ দেওয়া জায়গাটি নবীনগর শহরের নাভি। এই জায়গাটি উন্মুক্ত থাকলে নবীনগরের সৌন্দর্য বৃদ্ধি পাবে। অবিলম্বে এই জায়গার লিজ বাতিল করার দাবি জানাচ্ছি।’

নবীনগর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি সামস আলম বলেন, ‘আমি শুনেছি এই জায়গাটি রাতের আঁধারে দখল হয়েছে। আপনারা মিডিয়ার লোকজন প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলে প্রকৃত ঘটনার রহস্য বের করুন। আমরাও এ বিষয়টি নিয়ে আমাদের দলীয় ফোরামে আলোচনা করব।’

ফল বাজারটি লিজ বাতিল করার দাবি জানিয়ে উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম রিপন বলেন, ‘এই জায়গার লিজ নেওয়ার মুল হোতা সাইদুল আলম সোরাফ সাংবাদিকতার পরিচয়ে সে একজন ভূমিদস্যু। প্রশাসনের সঙ্গে সখ্যতা তৈরি করে যেখানে খাস জায়গা পাচ্ছে সেখানেই লিজের নামে দখল করছে এবং নবীনগরকে অশান্ত করে তুলছে।’

নবীনগর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবদুল্লাহ আল রোমান এই জায়গার লিজ বাতিল করে সে স্থানে নবীনগরের শহীদদের নামে স্মৃতি ফলক নির্মাণের দাবি জানিয়ে বলেন, ‘এই লিজের সঙ্গে যদি ছাত্রলীগের কনো নেতা কর্মী জড়িত থাকে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

নবীনগর উপজেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি আবু সাঈদ বলেন, ‘ফল বাজারের জায়গাটি লিজ বাতিল করে পুনঃউদ্ধার করে জনগনের জন্য উম্মুক্ত করে দেওয়ার জন্য আমাদের এমপি সাহেবের কাছে দাবি জানাচ্ছি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে নবীনগর উপজেলার কয়েকজন সাংবাদিক জানান, নবীনগর ডট টিভি নামে ইউটিউবে কথিত একটি অনলাইন চ্যানেল তৈরি করে সাইদুল রাতারাতি সাংবাদিক হয়ে উঠে। তারপর সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে সে উপজেলা প্রসাশনের বিভিন্ন দফতরে গিয়ে তদবির করে পরিচিত হয়ে ওঠে।

একটি সূত্র থেকে জানা যায়, এই জায়গাটি নিয়ে হাইকোর্টে একটি মামলা বিচারাধীন অবস্থায় রয়েছে।

সাইদুল আলম তার বিরুদ্ধে আনা সকল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘সরকার থেকে একসনা লিজ নিয়ে আমি বৈধভাবে একটি দোকান বরাদ্দপ্রাপ্ত হই এ ছাড়াও আরও আট জন বাকি জায়গার বরাদ্দ পায়।’

লিজ দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে নবীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সালেহীন তানভীর গাজী জানান, সরকারি সকল নিয়ম কানুন মেনেই এই জায়গাটি বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে এবং সেভাবেই কাজ চলছে।

এ বিষয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক রেজওয়ানুর রহমান জানান, যেহেতু জায়গাটা উপজেলা প্রশাসন লিজ দিয়েছে তাই এ ব্যাপারে আমি কিছুই জানি না। কিন্তু এমন কাউকে যদি লিজ দেওয়া হয় যে অসাধু ব্যাক্তি হিসেবে এলাকায় পরিচিত এবং এলাকার সব মানুষ তার বিরুদ্ধে কথা বলছে সে ক্ষেত্রে কঅ করণীয়, এমন প্রশ্ন করা হলে জেলা প্রশাসক জানান, তিনি খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা নিবেন।

- কুমিল্লা নিউজ ২৪/মোঃ এমদাদুল হক রনি/২৯ সেপ্টেম্বের’২০১৭

 

 

দারোগা বাড়ি, উত্তর চর্থা
কুমিল্লা-৩৫০০, বাংলাদেশ
ই-মেইল: bdcomillanews24@gmail.com
নিউজ রুম: +8801976530514

প্রধান সম্পাদকঃ হুমায়ূন কবির রনি
নিউজরুম এডিটরঃ তানভীর খন্দকার দীপু
নূরুল আমিন জহির
ই-মেইলঃ editor@comillanews24.com