বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭০ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে ৭০ পাউন্ড কেক কেটে উদযাপন করেছে কবিরুল ইসলাম শিকদার সমর্থিত ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নগরীর রাজগঞ্জ ফুড ইন হেভেন রেস্টুরেন্টে কেক কেটে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামীলীগ নেতা কবিরুল ইসলাম শিকদার। জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সভাপতি দেলোয়ার হোসেন, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা এড. টিপু, কুমিল্লা কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মুজিবুল হক । মহানগর ছাত্রলীগের আয়োজনে এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিল ছাত্রলীগের নেতাকর্মীবৃন্দ।


কুমিল্লা নিউজ ডেস্ক।। এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বছর খানেক আগে থেকেই বুড়িচং উপজেলার ৪নং ষোলনল ইউনিয়নের পূর্বহুড়া গ্রামের বিতর্কিত সর্দার দৌলত আহমেদ ধনুর সাথে স্থানীয় যুব সমাজের বিরোধ চলমান ছিল। নানা অনিয়ম আর মসজিদের উন্নয়ন কাজে বাধা দেওয়ার অপরাধে কয়েকবার তাকে স্থানীয় যুব সমাজের তোপের মুখে পড়তে হয়েছে। ভান্ডারি ওরস কিংবা খানকা শরীফের নামে বিভিন্ন মানুষের কাছ থেকে প্রতিনিয়ত চাদাঁ আদায় করে এই বিতর্কিত সর্দার ধনু মিয়া।তাহার নানা অনিয়ম আর অসামাজিক কার্যক্রমের ফলে ধনুর সাথে যুব সমাজের বিরোধ চরমে উঠে। তাই অনিয়মের প্রতিবাদকারী যুব সমাজকে হেনস্থা করে এলাকায় আধিপত্য বিস্তার কায়েম করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়, এবং ষড়যন্ত্রের কৌশল হিসাবে তার আপন ভাতিজা মোস্তফা কামাল পারভেজ জাবেদ হোসেন মিঠুর সহযোগীতায় ফেসবুকে বিভ্রান্তিকর তথ্য আপলোড করে সেই দায়ভার যুব সমাজের উপর চাপিয়ে একের পর এক হামলা অব্যাহত রাখে।

 গত  ৯ই অক্টোবর ২০১৭ ইং রোজ সোমবার পূর্বহুড়া (পূর্বপাড়া) গ্রামের মৃত: কানু মিয়ার দুই ছেলে জনাব দৌলত আহমেদ ধনু অব: সার্জেন্ট দেলোয়ার হোসেন দুলাল এবং তাদের দুই সহযোগী লোকমান হোসেন পিতা: মৃত: আব্দুল আজিজ এবং আব্দুল হক পিতা মৃত: আব্দুল হামিদ কর্তৃক এলাকার জুলেখা বেগম স্বামী সফিকুর রহমান, হেলেনা বেগম স্বামী বাবুল মিয়া, আম্বিয়া বেগম স্বামী: মৃত আলী আহম্মদ, দেলোয়ার আহমেদ পিতা মৃত: চারু মিয়া সর্দার, শরীফুল ইসলাম পিতা: সেলিম মিয়া সহ এলাকার সালাম, সুমন, মাসুদ, সোহেল, জামাল, মকবুল সহ পুরো যুব সমাজের উপর আলাদা আলাদা ভাবে বর্বরচিত সন্ত্রাসী  হামলা চালানো হয়েছে, পরের দিন একই ভাবে পুরুষশূন্য বাড়িতে হামলা চালাতে গেলে বাড়ির মহিলারা একত্রিত হয়ে তাদেরকে ঝাড়পিটা করে তাড়িয়ে দেয়, সেই ঝাড়পিটার প্রতিশোধ নিতে মরিয়া হয়ে উঠে ধনু তার ভাই দুলাল। তাই  শুধু মাত্র হামলা করেই ক্ষান্ত হয়নি বরং সাবেক চেয়ারম্যানের কাছে বিভ্রান্তিকর তথ্য উপস্থাপন করে বিচার আবেদন করে, বিষয়টি আমলে নিয়ে জনাব বিল্লাল হোসেন চেয়ারম্যান (সাবেক) দ্বিপাক্ষিক সমযোতার জন্য এলাকাবাসীকে নিয়ে একটি বৈঠকের আয়োজন করেন এবং বিষয়টি আংশিক সমাধান করেন এবং সন্ত্রাসী হামলার ঘটনাটি নেক্কারজনক বিধায় ভোক্তভোগীদের নিকট ক্ষমা প্রার্থনা করে তাদেরকে বাড়িতে গিয়ে সাত্বনা দিয়ে বিষয়টি পুরোপুরি নিষ্পত্তি করতে জনাব দৌলত আহমেদ ধনু তার ভাই সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে নির্দেশ প্রদান করেন। কিন্তু এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ সাবেক চেয়ারম্যানের এই যৌথ রায়কে দাম্ভিকতার সাথে অমান্য করে এবং সংশ্লিষ্ট এলাকার যুব সমাজ সহ সাবেক চেয়ারম্যানকে গালাগালি করে যা অডিও বার্তা শুনে নিশ্চিত হওয়া গেছে। বিষয়টিকে ঘিরে এলাকায় আতংক বিরাজ করছে পাশাপাশি নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছে এলাকার যুব সমাজ তাদের পরিবার পরিজনেরা।

 চলমান অস্থিরতা নিরসনে বিষয়টি মীমাংসার জন্য এলাকার সর্ব গ্রহনযোগ্য বিশিষ্ট সমাজ সেবক অব: সার্জেন্ট মো: আবু তাহের দায়িত্ব নেন, তিনিও সাবেক চেয়ারম্যান এলাকাবাসীর যৌথ রায়কে প্রাধান্য দিয়ে বিষয়টি নিষ্পত্তি করতে পরামর্শ দেন কিন্তু ওনার কথায় কর্ণপাত না করে যুব সমাজের উপর একের পর এক হামলা অব্যাহত থাকে, অবশেষে কোন উপায় না দেখে বাধ্য হয়েই গত ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭ইং তারিখে যুব সমাজের উদ্যোগে ১৬/১৭ জনের একটি দল সংঘবদ্ধ হয়ে সংশ্লিষ্ট সমাজের সন্মানিত গ্রহনযোগ্য কিছুসংখ্যক ব্যাক্তিবর্গের নিকট লিখিত ভাবে বিচার  প্রাপ্তির আবেদন করে, এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য স্থানীয় মেম্বার জনাব মাইনুদ্দিন মনির, পূর্বহুড়া গ্রামের মনির মাষ্টার, কাদের মাষ্টার, ফরিদ উদ্দিন দারোগা, কাহেতরার ছন্দুমিয়া,পূর্বহুড়া বাজার কমিটির জনাব, খোরশেদ ডাক্তার এবং রামনাগরের শাহীন কবীর অন্যতম, উক্ত বিচার আবেদনের বিষয়টি জানতে পেরে গত ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭ইং তারিখে আবদুছ সালাম, শরীফ, মকবুল, সোহেল, রবিন, সৈকত, সহ আরো অনেকে বিজয় র‌্যালিতে যাওয়ার জন্য প্রস্তুতি নিয়ে আব্দুল হকের দোকানের সামনে পৌছঁলে অব: সার্জেন্ট দেলোয়ার হোসেন দুলাল তার ভাই দৌলত আহমেদ ধনুর নির্দেশে সেখানে ওৎ পেতে থাকা দোকানদার আব্দুল হক, লোকমান হোসেন, পারভেজ, মোবারক তার স্ত্রী  সহ একত্রে

 উল্লেখিত ব্যাক্তিদের উপর পুনরায় নতুন করে বর্বরচিত সন্ত্রাসী হামলা চালায়, পরে পার্শ্ববর্তী দোকানদার কামাল এলাকাবাসীর সহযোগীতায় উক্ত হামলা হতে কোনমতে উদ্ধার হয়ে ওনারা কুমিল্লা - সংসদীয় আসনের মাননীয় এমপি জনাব বাহা উদ্দিন বাহার ভাইয়ের নেতৃত্বে কুমিল্লা টাউন হল অভিমুখে বিজয় র‌্যালিতে অংশগ্রহন করেন। উক্ত হামলার ভিডিও অডিও রেকর্ড হতে উল্লেখিত ঘটনার সত্যতা পাওয়া গিয়াছে।

 বিভিন্ন হুমকি ধামকি তোপের মুখে পড়ে যুব সমাজের অনেকেই নিরাপত্তাহীনতায় দিনযাপন করছে। সরেজমিনে খবর নিয়ে জানা যায় জনাব লোকমান হোসেন অবৈধ গাজাঁ বিক্রয় সেবনকারী হিসাবে অনেক আগেই স্থানীয়দেও কাছে পরিচিত, পাশাপাশি এলাকার মুদি দোকানদার আব্দুল হক চিকিৎসা বিদ্যায় কোন প্রকার প্রাতিষ্ঠানিক ডিগ্রি অর্জন ছাড়াই দোকানে বসেই চিকিৎসা সেবা প্রদান করছেন এবং ড্রাগ লাইসেন্স ছাড়াই অবৈধভাবে ঔষধ বিতরন বিক্রয় করে আসছেন দীর্ঘদিন ধরে, বিষয় দুটি ঝুকিপূর্ন বিধায় অবৈধ এইসব ব্যাবসা বন্ধে স্থানীয় যুব সমাজ প্রতিবাদী হয়ে উঠে, ফলে বিতর্কিত এই প্রভাবশালীরা যুব সমাজের নির্দিষ্ট কিছু ব্যাক্তির পরিবারকে বিচার বানচালে ভয় ভীতি চাপ প্রয়োগ করে আসছে বলে অভিযোগ আছে, বর্তমানে স্থানীয় প্রভাবশালী মেম্বার জনাব মাইনুদ্দিন মনির বিষয়টি নিষ্পত্তিতে মধ্যস্ততা করছেন বলে জানিয়েছেন।

কুমিল্লা নিউজ টুয়েন্টিফোর/জেনিফার পলি/২৪ ডিসেম্বর ২০১৭

 


 

তৌহিদ তপু।।  ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে কুমিল্লায় বিজয় র‌্যালী করেছে জেলা প্রশাসন ও সর্বস্তরের জনগন। শনিবার দুপুরে কুমিল্লা বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, সংগঠন ও এলাকা থেকে মিছিল এসে কুমিল্লা টাউন হল মাঠ জন সমুদ্রে পরিনত হয়। পরে কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহারের নেতৃত্বে প্রায় অর্ধলক্ষাধিক মানুষের অংশ গ্রহনে বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের হয়। র‌্যালীটি নগরির বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে আবার টাউন হল মাঠে এসে শেষ হয়। র‌্যালীতে আরও উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লার জেলা প্রশাসক জাহাংগীর আলম, পুলিশ সুপার মো: শাহ আবিদ হোসেন সহ অন্যান্যরা। এছাড়া ও মুক্তিযোদ্ধা, বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী-শিক্ষক, মহানগর আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ, বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের বিভিন্ন ওয়ার্ডের কাউন্সিলর বৃন্দ ও কুমিল্লার সাধারন মানুষ বিভিন্ন ব্যানার ফেস্টুন, বাশি, পতাকা নিয়ে এই আনন্দ র‌্যালীতে অংশ নেয়। এসময় শহর জুড়ে এক আনন্দঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়। বিভিন্ন স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীরা ফুল ছিটিয়ে র‌্যালীতে অংশ নেয়া অতিথিদের শুভেচ্ছা জানায়।স্লোগানে মুখরিত হয় কুমিল্লার রাজপথ।



তৌহিদ তপু।।   ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭ মহান বিজয় দিবস উদ্যাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা  করেছে কুমিল্লা মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি সংসদ সদস্য আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার। বুধবার সন্ধ্যায় জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে এই প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য ও মহানগর আ্ওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী আ ক ম বাহা উদ্দিন বাহার বিজয় দিবস উদযাপন বিকাল ৩টায় র‌্যালি ও সন্ধায় বিজয় উৎসব আয়োজনের লক্ষে দিক নির্দেশনা দেন। বিজয় র‌্যালিতে সাধারণ কুমিল্লা বাসির উপস্থিতি ও সকল স্কুল কলেজ ছাত্র-ছ্রাত্রী শিক্ষকদেও উপস্থিত থাকার বিষয়ে আলোচনা করেণ। প্রস্তুতি সভায় উপস্থিত ছিলেন মহানগর আ্ওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আরফানুল হক রিফাত, কমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলরবৃন্দ, বিভিন্ন কলেজের প্রিন্সিপালবৃন্দ, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষকবৃন্দ, আ্ওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মী সহ কমিল্লার সাধারন মানুষ।


তৌহিদ তপু।।  মাদকের সাথে জড়িত কাউকেই ছাড় দেয়া হবে না, আমি প্রশাসনের সকলকে বলবো মাদক নির্মূলে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করুন, কুমিল্লা বিবির বাজার এলাকায় মাদক বিরোধী ফুটবল টূর্ণামেন্টে বক্তৃতায় কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার একথা বলেন।
কুমিল্লা বিবির বাজারে মাদকের বিরুদ্ধে ফুটবল-২০১৭ এর চূড়ান্ত খেলা ও পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকালে কুমিল্লা আদর্শ সদর উপলোর বিবির বাজার এলাকায় বিবির বাজার উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে জেলা মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন কার্যালয় কুমিল্লার কুমিল্লা জেলা প্রশাসনের আয়োজনে এই অনুষ্ঠনের আয়োজন করা হয়। এর আগে বিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গন থেকে  জেলা প্রশাসক জাহাংগীর আলম ও পলিশ সুপার মোঃ শাহ আবিদ হোসেনের নেতৃত্বে মাদক বিরোধী একটি র‌্যালী বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে। পরে কুমিল্লা জেলা ফুটবল এসোসিয়েশন একাদশ ও আদর্শ সদর উপজেলা একাদশের মধ্যে চূড়ান্ত খেলা ও পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক জাহাংগীর আলমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী আ ক ম বাহা উদ্দিন বাহার। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহা পরিচালক সঞ্জয় কুমার চৌধুরী, জেলা পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন ১০ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল খন্দকার গোলাম সারোয়ার, বিভাগীয় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন কার্যালয় চট্টগ্রামের অতিরিক্ত পরিচালক মোঃ ফজলুর রহমান, কুমিল্লা জেলা ফুটবল এসোসিয়েসনের সভাপতি ও কমিল্লা মহানগর আ্ওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আরফানুল হক রিফাত, আদর্শ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এড. আমিনুল ইসলাম টুটুল, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারন সম্পাদক নাজমুল আহসান ফারুক, ৬নং জগন্নাথপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোঃ মামুনুর রশিদ,  আদর্শ সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সামসুজ্জামান, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন কার্যালয় কুমিল্লার উপ পরিচালক মোঃ মানজুারুল ইসলাম, কোতয়ালী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবু সালাম মিয়া, আদর্শ সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ তরিকুর রহমান জুয়েল।


তৌহিদ তপু।।   কুমিল্লা চিড়িয়াখানার সিংহ যুবরাজ মারা গেছে। মঙ্গলবার সকালে কুমিল্লা চিড়িয়াখানায় তার মৃত্যু হয়। সিংহটি দীর্ঘদিন ধরে মুমূর্ষু অবস্থায় ছিলো। যুবরাজের ময়নাতদন্তের জন্য ৩ সদস্যের একটি মেডিকেল টিম গঠন করা হয়েছে।
কুমিল্লা সদর উপজেলার প্রাণিসম্পদক কর্মকর্তা চন্দন কুমার পোদ্দার জানান, বার্ধক্যজনিত কারনেরই সিংহটির মৃত্যু হয়েছ্।ে ময়নতদন্তের পর সিংহটির বিভিন্ন অঙ্গ প্রতঙ্গেও আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। যা পরীক্ষা করার জন্য ঢাকায় পাঠানো হবে। আর তার দেহের অন্যান্য অংশ কুমিল্লা চিড়িয়াখানাতেই মাটি চাপা দেয়া হবে।
গত নভেম্বরে কুমিল্লা চিড়িয়াখানার সিংহ যুবরাজের রুগ্নতা নিয়ে খবর বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হবার পর তাকে প্রদর্শন ও চিকিৎসার পরামর্শ দেন ঢাকা থেকে আসা বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা। ২০০৪ সালে চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা থেকে যুবরাজকে কুমিল্লা চিড়িয়াখানায় আনা হয়।
সট: চন্দন কুমার পোদ্দার, সদর উপজেলার প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা, কুমিল্লা।।



তৌহিদ তপু।।     কুমিল্লা ডিবি পুলিশের মাদকদ্রব্য উদ্ধার ও বিশেষ অভিযানে বিপুল পরিমান মাদক দ্রব্য উদ্ধার ও দুই জনকে আটক করেছে। শনিবার ভোররাতে  এসআই মোঃ শাহ কামাল আকন্দ (পিপিএম), এসআই মোঃ সহিদুল ইসলাম (পিপিএম), এসআই মোঃ নজরুল ইসলাম,ও এএসআই নন্দ চন্দ্র সরকার সঙ্গীয় ফোর্সসহ মাদকদ্রব্য উদ্ধার ও বিশেষ অভিযান ডিউটি করা ভোর রাত ০৪:৫০ ঘটিকার সময় কুমিল্লা সদর দক্ষিন থানাধীন তাজ ফিলিং ষ্টেশনের সামনে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের উপর হয়তে ঢাকা গামী একটি নিল রংয়ের মাইক্রোবাস হইতে আসামী (১) মোঃ সুমন মিয়া (চালক) ২৯, পিতা- সামছুল হক সাং-খোন্তাকাটা,থানা -বরগুনা জেলা- বরগুনা ২. মোঃ ইসলাম হাসান (২৩) পিতা- হারুন মিয়া সাংকানাইনগর, থানা-বাঞ্ছারামপুর,জেলা- বি-বাড়ীয়াদয় কে একটি নিল রংয়ের মাইক্রোবাসএর বিতরে ৪ টি বস্তায় রক্ষিত এর মধ্যে ৩ টি বস্তায় প্রতি বস্তায় ২৫০ বোতল করিয়া ৭৫০ বোতল এবং অপর একটি বস্তায় ২৮০ বোতল সর্বমোট ১০৪০ বোতল ফেনসিডিল সহ আটক করেন।
 
এ বিষয়ে সদর দক্ষিন মডেল থানায় মামলা রুজু করা হইয়াছে।

কুমিল্লা নিউজ ডেস্ক।।কুমিল্লার দাউদকান্দিতে একটি যাত্রীবাহীবাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের গাছের সাথে ধাক্কা খেলে পিতা পুত্রসহ ৪ জন যাত্রী নিহত ও ৫ জন যাত্রী আহত হয়

পুলিশ জানায়, আজ সোমবার ভোররাতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দাউদকান্দির রায়পুরের শিম্বলিয়া নামক স্থানে সৌদি পরিবহনের যাত্রীবাহী বাসটি নিয়ন্ত্রন হারিয়ে রাস্তার পাশে গাছের সাথে থাক্কা খেলে ঘটনাস্থলে ২ জন ও হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসা অবস্থায় আরো ২ জন নিহত হয়

নিহতরা হলেন টট্রগ্রামের লোহাগড়া উপজেলার শাহাবুদ্দিন ও তার শিশু সন্তান আবু হানিফ , একই এলাকার নূরুল ইসলাম এবং সাতকানিয়ার আমজাদ হোসেন

পুলিশ নিহতদের মরদেহ স্বজনদের নিকট হস্তান্তর করেছে এবং আহতদের ঢাকা মেডিকেল কলেজে প্রেরন করেছে


 

কুমিল্লা নিউজ টুয়েন্টিফোর/নিজাম আহমেদ/১১ডিসেম্বর ২০১৭

 


তৌহিদ তপু।।     কুমিল্লার দাউদকান্দিতে একটি যাত্রীবাহীবাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের গাছের সাথে ধাক্কা খেলে পিতা পুত্রসহ ৪ জন যাত্রী নিহত ও ৫ জন যাত্রী আহত হয়।
পুলিশ জানায়, আজ সোমবার ভোররাতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দাউদকান্দির রায়পুরের শিম্বলিয়া নামক স্থানে সৌদি পরিবহনের যাত্রীবাহী বাসটি নিয়ন্ত্রন হারিয়ে রাস্তার পাশে গাছের সাথে থাক্কা খেলে ঘটনাস্থলে ২ জন ও হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসা অবস্থায় আরো ২ জন নিহত হয়।
নিহতরা হলেন চট্টগ্রামের লোহাগড়া উপজেলার শাহাবুদ্দিন ও তার শিশু সন্তান আবু হানিফ, একই এলাকার নূরুল ইসলাম এবং সাতকানিয়ার আমজাদ হোসেন ।
পুলিশ নিহতদের মরদেহ স্বজনদের নিকট হস্তান্তর করেছে এবং গুরুতর আহতদের ঢাকা মেডিকেল কলেজে প্রেরন  করেছে এবং বাকীদের স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।


 

তৌহিদ তপু।।     জাতীয় ভ্যাট দিবস ভ্যাট সপ্তাহ উপলক্ষে কুমিল্লায় অনুষ্ঠিত হয় বর্ণাঢ্য র‌্যালী, আলোচনা সভা শ্রেষ্ট করদাতাদের মাঝে পুরস্কার বিতরন সভা।

 

সকালে কুমিল্লা শহরের ফৌজদারী এলাকায় কুমিল্লাস্থ কাষ্টম, এক্সাইজ ভ্যাট কমিশনার এর বিভাগীয় কার্ষালয়ের সামনে থেকে কুমিল্লা অঞ্চলের কাষ্টম, এক্সাইজ ভ্যাট কমিশনার মোঃ মাহাবুবুজ্জামনের নেতৃত্বে একটি বর্ণাঢ্য ্যালী বের হয়ে ডিসি অফিস সংলগ্ন সড়ক প্রদক্ষিন শেষে ধর্ম সাগর পাড়স্থ কুমিল্লা নজরুল ইনস্টিটিউটের সামনে এসে শেষ হয়।

 

পরে নজরুল ইনষ্টিউটের সামনে ফেষ্টুন কবুতর উড়িয়ে করদাতা ব্যাবসায়ীদের সাথে কর কমিশনের কর্মকর্তদের আলোচনা সভার উদ্বোধন করেন কুমিল্লা অঞ্চলের কাষ্টম, এক্সাইজ ভ্যাট কমিশনার মোঃ মাহাবুবুজ্জামান।

 

এসময় কুমিল্লা অঞ্চলের যুগ্ম কর কমিশনার মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, সহকারী কর কমিশনার আবদুল কাইয়ুমসহ কর কমিশনেসর কর্মকর্তা, করদতা স্থানীয় ব্যবসায়ীগন উপস্থিত ছিলেন।

 

পরে নজরুল ইনষ্টিউটের হল রুমে অনুষ্টিত হয় ব্যাবসায়ী করদাতাদের সাথে কর কমিশনের কর্তকর্তাদের আলোচনা সভা। সভায় শ্রেষ্ট করদাতাদের পুরস্কার বিতরন করা হয়।


Page 1 of 59

দারোগা বাড়ি, উত্তর চর্থা
কুমিল্লা-৩৫০০, বাংলাদেশ
ই-মেইল: bdcomillanews24@gmail.com
নিউজ রুম: +8801976530514

প্রধান সম্পাদকঃ হুমায়ূন কবির রনি
নিউজরুম এডিটরঃ তানভীর খন্দকার দীপু
নূরুল আমিন জহির
ই-মেইলঃ editor@comillanews24.com