দাউদকান্দিতে কলেজ ছাত্রের মৃত্যু আটক-৩

কুমিল্লা ডেক্স।। দাউদকান্দির গৌরীপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ব্যাপক ভাংচুর চালিয়েছে জুরানপুর আদর্শ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার বিকাল ৪ টায় গৌরীপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নির্বিচারে অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী এ হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। এসময় পুলিশ তিন জনকে আটক করে। ভাংচুরে ঘটনায় তিন সদস্যদের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

জানা যায়, মঙ্গলবার দাউদকান্দি উপজেলার জুরানপুর আদর্শ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ছাত্র ইয়ামিন ভূইয়া (১৮) বন্ধুদের সাথে বাজি ধরে উক্ত কলেজের পুকুরে ডুব দিতে গিয়ে মৃত্যুবরণ করেছে। ইয়ামিনের বন্ধুগণ সে কত মিনিট পানিতে ডুব দিয়ে থাকতে পারে এ নিয়ে বাজি ধরলে ইয়ামিন পুকুরে ডুব দিয়ে অনেকক্ষন থাকার পর আর না উঠলে বা সংকটাপন্ন অবস্থায় পতিত হলে তার বন্ধুগণ তাকে পুকুর থেকে উঠিয়ে স্থানীয় দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। কর্তব্যরত চিকিসক ডাঃ মোঃ আল আমিন মিয়াজী কলেজ ছাত্র ইয়ামিনকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃত ঘোষণা করার পর ইয়মিনের বাবা পুত্রের মৃত্যু নিয়ে সন্দেহ পোষণ করেন এবং গৌরীপুর বাজারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ইয়ামিনকে ইসিজি করতে নিয়ে চলে যান। কিছুক্ষণ পর ইয়ামিনের বন্ধুগণ হঠা লাঠিছোটা নিয়ে দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ব্যাপক ভাংচুর চালায়। জরুরী বিভাগ থেকে শুরু করে হাসপাতালের নিচ তলায় বিভিন্ন অফিস কক্ষে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করে। সংবাদ পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন কুমিল্লা সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (দাউদকান্দি সার্কেল) মহিদুল ইসলাম, দাউদকান্দি মডেল থানার ওসি (তদন্ত) রনজন কুমার ঘোষ, গৌরীপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোঃ আসাদুজ্জামান আসাদসহ বিপুল সংখ্যক আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন, দাউদকান্দি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মেজর (অবঃ) মোহাম্মদ আলী সুমন, দাউদকান্দি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আল-আমিন।
দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ জালাল হোসেন জানান, শিক্ষার্থীরা হাসপাতালে হামলায় চালিয়ে যে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করেছে তা দুঃখ জনক। এবিষয়ে উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। দাউদকান্দি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আল-আমিন জানান, এঘটনায় দাউদকান্দি উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) অরবিন্দ বিশ^াস, উপজেলা যুব উন্নয়ণ অফিসার মোঃ সাইফুল ইসলাম ও উপজেলা প্রাণী সম্পদ অফিসার আমিনুল ইসলামকে নিয়ে তিন সদস্যদের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। দাউদকান্দি মডেল থানার ওসি (তদন্ত) রনজন কুমার ঘোষ বলেন, ভাংচুরের ঘটনায় জুরানপুর কলেজের ছাত্র অনার্র্স প্রথম বর্ষের অনুপম, দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্র জামাল ও নবিল হাসানকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

 

 

 

 

কুমিল্লানিউজটুয়োন্টিফোরডটকম/মো:রাকিব/১৯জুলাই২০১৭

দারোগা বাড়ি, উত্তর চর্থা
কুমিল্লা-৩৫০০, বাংলাদেশ
ই-মেইল: bdcomillanews24@gmail.com
নিউজ রুম: +8801976530514

প্রধান সম্পাদকঃ হুমায়ূন কবির রনি
নিউজরুম এডিটরঃ তানভীর খন্দকার দীপু
নূরুল আমিন জহির
ই-মেইলঃ editor@comillanews24.com